অবৈধ ইটভাটা ভেঙ্গে দিল প্রশাসন : ধরাছোয়ার বাইরে নাহিদ সেরনিয়াবাত


বরিশাল : ছাত্রলীগের বিতর্কিত নেতা নাহিদ সেরনিয়াবাতের অবৈধ সেই ইটভাটাটি গুড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) র‌্যাব ও ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় দেশ ব্রিকস্ নামক ইট ভাটাটি গুড়িয়ে দেয়া হয়। সেই সাথে ভাটার পরিচালক হাজী মোহাম্মাদ আবদুস সালামকে তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। এমনকি তাকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডেও দন্ডিত করা হয়েছে।

পরিবেশ অধিদপ্তর জানিয়েছে, বরিশাল বিভাগে দেশ ব্রিকস্ নামে অনুমোদিত কোন ইটভাটা নেই। কিন্তু ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সুজাবাদ গ্রামে অবৈধভাবে নির্মিত ইটভাটায় ইট উৎপাদন করা হচ্ছিল। এমনকি সেখানে বিভিন্ন নামে বে-নামে ইট তৈরি করা হতো। বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম জানিয়েছেন, র‌্যাব ও ফায়ার সার্ভিস নিয়ে ভাটাটিতে মঙ্গলবার অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ অনুসারে জেলা প্রশাসকের লাইসেন্স ব্যতীত ইট উৎপাদন করায় ৪ ধারায় ভাটার একজন পরিচালককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

পাশাপাশি তাকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। সেই সাথে গুড়িয়ে ফেলা হয়েছে ইটভাটা ও ৩ লক্ষ কাঁচা ইট।

পরিবেশ অধিদপ্তরের এই অভিযান স্থানীয়দের স্বস্তি দিলেও ইট ভাটাটির মালিক বরিশাল বিএম কলেজের অস্থায়ী কর্মপরিষদের সাবেক জিএস নাহিদ সেরনিয়াবাতের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।