আদালতে হাজিরা শেষে পিরোজপুরে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে খুন


পিরোজপুর সদর উপজেলায় সাকিল আহমেদ আশীষ (৪০) নামে যুবলীগের এক কর্মীকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে কলাখালী-পিরোজপুর সড়কের কৈবর্ত্যখালী নামক স্থানে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবলীগ কর্মী সদর উপজেলার কলাখালী ইউনিয়নের দাউদপুর গ্রামের মৃত মোকছেদ আলী হাওলাদারের ছেলে মো. সাকিল আহমেদ আশীষ (৪০)। তিনি ওই ইউনিয়নের যুবলীগ কর্মী ছিলেন।

স্থানীয় যুবলীগ কর্মীরা জানিয়েছে, জেলা জজ আদালতে একটি মামলায় হাজিরা শেষে বাড়ি ফেরার পথে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কলাখালী-পিরোজপুর সড়কের কৈবর্ত্যখালী নামক স্থানে ১০-১৫ জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র দিয়ে আশীষকে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে খুলনা আড়াইশ’শয্যা হাসপাতালে পাঠান হয়। সেখানে বিকাল ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আশীষ মারা যান।

পিরোজপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক সাকিল সরোয়ার জানান, আশীষের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে দ্রুত খুলনা পাঠানো হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলাখালী ইউনিয়ন পরিষদের একজন সদস্য জানান, আশীষের ওপর কৈবর্ত্যখালী গ্রামের রিপন, মনির, ফাইজুল, রেজাউল, অমি, জামিল ও এনামসহ অন্তত ১০-১৫ জনের একটি দল সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে বলে আহত অবস্থায় আশীষ তাকে জানিয়েছেন।

সদর থানার ওসি এসএম জিয়াউল হক জানান, আশীষ নামের এক যুবককে কতিপয় যুবক কুপিয়েছে শুনেছি। কিন্তু থানায় এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ আসেনি। তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।