ঈদ জামাতের শিশু-বৃদ্ধ আসতে বারণ, মসজিদেই হবে একাধিক জামাত


বরিশাল : একই মসজিদে একাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন করতে নির্দেশনা দিয়েছে বরিশাল জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ। ঈদের সকাল ৭টা থেকে সকাল ১১টার মধ্যে পৃথকভাবে ঈদ জামাত শেষ করতে হবে। আর এ জন্য প্রতিটি মসজিদে ঈদের নামাজ পড়ানোর জন্য একাধিক ইমামের ব্যবস্থা রাখতেও বলা হয়েছে মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে। একইসাথে শিশু, বয়োবৃদ্ধ ও অসুস্থ মানুষদের মসজিদে আসা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধ সম্পর্কিত বরিশাল জেলা কমিটির সভায় গৃহীত ওই সিদ্ধান্ত শুক্রবার বিকালে এক সংক্ষিপ্ত সভা শেষে বরিশাল মহানগরীসহ জেলার প্রতিটি মসজিদের ইমাম ও পরিচালনা কমিটির নিকট প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে গত বুধবার বরিশাল জেলা পর্যায়ে ‘কোভিড ১৯ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ পূর্বক আসন্ন ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ আদায়ে করণীয় ‘বিষয়ক সভাশেষে ওই সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছিল।

ওই সভার বরাত দিয়ে বরিশাল বরিশাল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার (মিডিয়া সেল) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুব্রত বিশ্বাস দাস জানিয়েছেন, ‘ঈদগাহর পরিবর্তে এবারের ঈদের নামাজ মসজিদের ভিতরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পড়তে হবে।

মুসুল্লিদের সুবিধার্থে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত কল্পে স্বল্প পরিসরে প্রতিটি মসজিদে একাধিক জামাতের আয়োজন করতে হবে। প্রতিটি জামাতে মুসুল্লিদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়া, মুসুল্লিদের বাড়ি থেকে ওযু করে মসজিদ প্রাঙ্গনে আসতে হবে৷ মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে মসজিদের প্রবেশমুখে সাবান/হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে। মসজিদের ভিতরে কার্পেট বিছানো যাবে না।

এর পরিবর্তে মুসুল্লিরা বাড়ি থেকে জায়নামাজ নিয়ে আসতে হবে৷ ঈদ জামাতের পূর্বে অবশ্যই জীবাণুনাশক দিয়ে মসজিদ পরিস্কার করতে হবে। .


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]