উজিরপুরে নিরু হত্যা : ২ বছর পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

  • 20
    Shares

উজিরপুর : বরিশালের উজিরপুর উপজেলার শোলক ইউনিয়নের গজেন্দ্র গ্রামে নিরু রায়হান নামক এক কলেজ শিক্ষকের মূত্যুর প্রায় ২ বছর পর আদালতের নির্দেশে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করেছে সি আইডি পুলিশ।

সোমবার (৮ মার্চ) দুপুরে উজিরপুর সহকারী কমিসনার ভূমি জয়দেব চক্রবর্তী, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাঃ সামসুদ্দোহা তৌহিদেরর উপস্থিতিতে উজিরপুর মডেল থানার এস আই মিজানুর রহমান ও সিআইডি পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা এস,আই মিজানুরসহ একটি দল কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

জানা গেছে উজিরপুর উপজেলার গজেন্দ্র গ্রামের জোগেশ শীলের পুত্র নিরাঞ্জন শীল নিরু একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর হিসাবে কর্মরত থাকায় এক এনজিও’র কর্মকতা সৈয়দা শাহিনা আক্তারের সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরী হয়। এক পর্যায়ে নিরাঞ্জন শীল নিরু মুসলিম ধর্ম গ্রাহন করে শাহিনাকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে নীরু’র সাথে পরিবারের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। বাড়ির জমি নিয়ে ভাইদের সাথে একাধিক বার শালিস বৈঠক হয়। জমি বিক্রি করতে নীরু রায়হান বাড়িতে অবস্থান কালে ২০১৯ সলের ২১ এপ্রিল বিকালে তার রহস্যজনক মূত্যু হয়।

নীরুর স্ত্রী শাহিনা আক্তার চট্রগ্রামে চাকুরি করার কারণে তাকে না জানিয়ে তাড়িঘড়ি করে লাশ দাফন করা হয়। পরবর্তীতে ২০২০ সালের ১২ অক্টোবর তার স্ত্রী শাহিনা আক্তার বাদী হয়ে নীরু রায়হানকে হত্যার অভিযোগে বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যজিষ্ট্রিট আদালতে মনোরঞ্জন শীল মনো, সুশান্ত শীল শান্ত, বিমল চন্দ্র শীল, অঞ্জন শীল, অমল চন্দ্র শীল, কনা রানী শীল, অর্পিতা রানী টুম্পা, মিথুন দীপ জয়কে অভিযুক্ত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালত মামলাটি তদন্তর জন্য সি আইডি পুলিশের উপর দায়িত্ব দিলে সি আইডি পুলিশ নীরু রায়হানের লাশ উত্তোলন করে হত্যা কান্ডের রহস্য উন্মোচন করতে ফরেনসিক বিভাগে প্রেরণ করেছেন।


  • 20
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]