এমন বিরূপ পরিস্থিতি মেনে নেয়া যায় না: কোহলি


বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেছেন, এটা মেনে নেয়া কষ্টকর। এমন বিরূপ পরিস্থিতি মেনে নেয়া যায় না। কিন্তু আপনি খেয়াল করলে দেখবেন, নিউজিল্যান্ডের জন্য এটা পাওনা। তারা আমাদের যথেষ্ট চাপ তৈরি করতে পেরেছে। এমনকি চাপের মুহূর্তগুলোতে তারা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি ধারালো ছিল।

নিজেদের দূর্বলতা স্বীকার করে কোহলি বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে কিইউরা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি কার্যকর ছিল। যখন আপনি ভালো ক্রিকেট খেলেন, তখন এটা সবসময়ই হতাশা নিয়ে আসে যে কেবল ৪৫ মিনিটের খারাপ ক্রিকেটের জন্য আপনাকে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়ে যেতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা বোলিংয়ে খুবই ভালো। খেলায় আমরা সেটা দেখাতে পেরেছি। যে কারণে নিউজিল্যান্ডকে আমরা এমন জায়গায় থামিয়ে দিতে পেরেছি, সেটা তাড়া করে জেতা সম্ভব ছিল।

বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরে যায় দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারত।

মঙ্গলবার ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারে টস জিতে ৫ উইকেটে ৪৬.১ ওভারে ২১১ রান করতেই বৃষ্টির বাগড়ায় পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। আগের দিন যেখানে খেলা শেষ করেছিল, বুধবার রিজার্ভডেতে সেখান থেকেই ফের খেলা শুরু করে কিউইরা। বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম সেমিফাইনালে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৩৯ রানে ইনিংস গুটায় কেন উইলিয়ামসনের দল।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪০ রানের মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে মাত্র ৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় ভারত। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে দলীয় ৪ রানে ম্যাট হেনরির বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দেন রোহিত শর্মা। আগের তিন ম্যাচে টানা সেঞ্চুরি করা রোহিত এদিন ফেরেন চার বলে মাত্র ১ রান করে।

রোহিত শর্মার বিদায়ের পর উইকেটে নেমে ৬ বল খেলার সুযোগ পান বিরাট কোহলি। বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান ট্রেন্ট বোল্টের গতির বলে এলবিডব্লিউ হন। রিভিউ নিয়েও উইকেট বাঁচাতে পারেননি তিনি। কোহলি ফেরেন মাত্র ১ রান করে।

চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে ম্যাট হেনরির বলেই উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অন্য ওপেনার লোকেশ রাহুল। তিনিও ফেরেন মাত্র এক রানে। বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম তিন ব্যাটসম্যান এভাবে ১ রান করে আউট হওয়ার রেকর্ড এবারই প্রথম।

তখনই ভারতীয় শিবিরে শোকের ছায়ায় নীল হয়ে যায়। তবে জাদেজা ও মহেন্দ্র সিং ধোনি সপ্তম উইকেট জুটিতে অনবদ্য ১১৬ রান করলে এক পর্যায়ে মনে হয় ভারত সহজেই জিতে জেতে পারে। তবে শেষ দিকে মাত্র ১৩ রানের ব্যবধানে শেষ চার উইকেট হারিয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় কপিল দেবের উত্তরসূরিরা।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।