গলাচিপায় ডাকসু ভিপি নুরু’র উপর যুবলীগের হামলা


পটুয়াখালীর গলাচিপার উলানিয়া বন্দরে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরু’র উপর হামলা করেছে যুবলীগের কর্মীরা। হামলায় নুরুসহ কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নুরুকে উদ্ধার করে গলাচিপা হাসপাতালে প্রেরন করে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নুরু তার গ্রামের বাড়ি চরকাজলে চলে গেছেন বলে নিশ্চিত করেছে গলাচিপা থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায় আত্মীয় বাড়িতে দাওয়াত খেতে যাবার জন্য ভিপি নুরু আজ সকালে তার গ্রামের বাড়ি চরকাজল থেকে গলাচিপা আসেন। সেখান থেকে মটর সাইকেলযোগে দশমিনা যাবার পথে উলানিয়া চৌরাস্তা এলাকায় পৌছলে উলানিয়া বন্দর যুবলীগ সাধারন সম্পাদক নাজমুলের নেতৃত্বে তার উপর হামলা চালানো হয়। এ সময় নুরুসহ তার দুই ভাই ও ভগ্নিপতি মসজিদের কাছে একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে গলাচিপা হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নুরু বাড়ি চলে যায়।

এ বিষয়ে গলাচিপা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিন শাহ জানান,পনের আগষ্ট নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করার কারনে স্থানীয় লোকজন তাঁকে চড় থাপ্পর দিয়েছে। তারা আসলে নুরুকে চিনতে পারেনি। আওয়ামী লীগের এলাকা হওয়ায় পনের আগস্ট নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করার কারনে এ ঘটনা ঘটেছে বলে দাবী করেন তিনি।

গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আকতার মোর্শেদ জানান, হামলার খবর শুনে পুলিশ গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে গলাচিপা হাসপাতালে পাঠায়। তবে তার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই বলে দাবী করেন তিনি। তিনি বলেন,তারা খেয়ে নুরু স্থানীয় একটি বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলো।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।