গাংনীতে ঈদ জামাতে টাকা কম দেয়া নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১


মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরের গাংনীতে ঈদ জামাতে টাকা কম দেয়া নিয়ে সংঘর্ষে আলেক হোসেন (৪৪) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার বিকেলে উপজেলার সাহারবাটি বাঙাল পাড়া এলাকায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুরুতর আহত আলেক হোসেনকে ঢাকায় নেয়ার পথে মঙ্গলবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। নিহত আলেক হোসেন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহারবাটি গ্রামের দবির উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাহারবাটি বাঙাল পাড়ায় ঈদের জামাতে নামাজ আদায় করেন স্থানীয় লোকজন।

নির্মাণাধীন মসজিদের খরচ জোগানোর জন্য মুসল্লিদের কাছ থেকে টাকা তোলা হয়। যার যেমন সামর্থ্য সে তেমন টাকা দিয়ে থাকে। আবার অনেকে দেয় না। মুসুল্লিদের কাছে টাকা তোলার সময় আলেক হোসেনের মামা মনিরুল ইসলামও ২০ টাকা দেন। কম টাকা দেয়ায় বিষয়টি নিয়ে সোমবার বিকেলে স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে আড্ডায় মেতে ওঠেন স্থানীয় লোকজন। এই আড্ডার এক পর্যায়ে মনিরুল ইসলামকে অপমান করেন একই পাড়ার রুহুল আমিন। এই নিয়ে মনিরুল ও রুহুল আমিনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

সংঘর্ষের সময় মনিরুলের ভাগ্নে আলেক হোসেন গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতাল নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কুষ্টিয়া মেডিকেলে রেফার্ড করেন। সেখানে তার অবস্থার আরও অবনতি হলে রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। ঢাকা নেয়ার পথে মঙ্গলবার ভোরে সাভারে তার মৃত্যু হয়।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সংঘর্ষে আহতের ঘটনায় সোমবার রাতেই মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। আলিফ হোসেন মারা যাওয়ায় ওই মামলার সঙ্গে হত্যা মামলার ধারা যোগ হবে।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।