চলন্ত গাড়িতে নগ্ন তিন তরুণী


ঝড়ের বেগে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছেন এক তরুণী। তার সাথে গাড়িতে বসে আছেন আরও দুই তরুণী। তিনজনই নগ্ন। আর পেছন থেকে তাদের গাড়ি আটকাতে ধাওয়া করছে পুলিশের গাড়ি। না, এটা সিনেমার কোনো দৃশ্য নয়। বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। তা ঠিক কী হয়েছিল?

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর, রাস্তার পাশে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রেখেছিলেন ওই তিন তরুণী। তিন জনেই পুরো নগ্ন হয়ে গাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তরুণীদের এমন কাণ্ড কানে পৌঁছতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়।

তরুণীদের এমন বেশে থাকার কথা জিজ্ঞাসা করতেই পুলিশকে তারা জানান, গোসলের পর ‘সানট্যান’ লোশন মেখে সানবাথ নিচ্ছেন! পুলিশ বাধা দিতে গেলে তাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। তারপরই গাড়িতে চেপে ঝড়ের গতিতে সেখান থেকে বেরিয়ে যান তাঁরা। পুলিশও তাদের ধাওয়া করতে শুরু করে। কিছুতেই ওই তরুণীদের বাগে আনা সম্ভব হচ্ছিল বলে জানান এক পুলিশ কর্মকর্তা।

এ ভাবে ঘণ্টাখানেক ‘র‌্যাট অ্যান্ড ক্যাট’ রেস চলতে থাকে পুলিশ-তরুণীদের মধ্যে। একটা সময় তরুণীদের গাড়ি ওভারটেক করে তাদের গতিরোধ করার চেষ্টা করে পুলিশ। এক পুলিশ কর্মকর্তাার দাবি, বাধা দিতে গেলে তাদের এক কর্মীকে চাপা দিয়ে মারার চেষ্টাও করেন ওই তরুণীরা। অবশেষে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশের উপর হামলা, গ্রেফতারে বাধা দেওয়া এবং অশ্লীলতার অভিযোগ এনে গ্রেফতার করে পুলিশ।