চেক প্রতারণায় সাজাভোগে পুলিশ সদস্য কারাগারে


চেক দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত এক পুলিশ সদস্যকে জেলে পাঠিয়েছে আদালত। ১৯ মে রোববার বরিশালের ২য় যুগ্ম জেলা জজ শফিকুল ইসলাম বিচারাধীন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে সাজাভোগে জেলে পাঠানো হয়। সাজাপ্রাপ্ত আসামীর নাম রাসেল রেজা। তিনি ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী বন্দপাশা কাটাঘর এলাকার বাসিন্দা আলম মোল্লার ছেলে।

 

তিনি ষষ্ঠ পুলিশ আর্মড ব্যাটালিয়নের উত্তরা ক্যাম্পে চাকুরী করে। অগ্রনী ব্যাংক বরিশাল শাখা হতে লোন নিয়ে পাওনার বিপরীতে ২০১২ সালের ১৭ জুলাই ২ লাখ ৬৬ হাজার ৩ শ ৫০ টাকার চেক দেয়। চেকটি ২৯ জুলাই ব্যাংকে জমা দেয়া হলে হিসাব শাখায় পর্যাপ্ত ব্যালেন্স না থাকায় তা প্রত্যাখ্যাত হয়। ২ আগস্ট আইনী নোটিশ দেয়ার পরও টাকা ফেরত না দেয়ায় ১৯ সেপ্টেম্বর ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার মারভিন গোমেজ বাদী হয়ে মামলা করে। মামলায় ১ জনের সাক্ষ্য নিয়ে অপরাধ প্রমাণ পেয়ে গতবছর ২৭ জুন তাকে একমাস কারাদণ্ড সহ দুই লাখ ৬৬ হাজার ৩ শ ৫০ টাকা অর্থদন্ড দেন।রায়ের সময় পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা ও গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করা হয়।

 

রোববার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তার জামিন না মঞ্জুর তাকে সাজাভোগে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়ে দেন বলে আদালত সূত্র জানায়।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]