ছাত্রীকে উত্যক্তর প্রতিবাদ করায় পিতামাতাসহ ৪ জনকে মারধর


আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় এক স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করে জোর করে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট করার প্রতিবাদ করায় বখাটেদের হামলায় স্কুল ছাত্রীর বাবা-মা, দুই চাচী গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বখাটে ও তাদের বাবাসহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আফজাল হোসেন জানান, উপজেলার সুজনকাঠী গ্রামের জাকির হোসেন বেপারী মেয়ে ও সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী শারমিন আক্তারকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে বিভিন্ন সময় উত্তক্ত করে আসছিলো একই এলাকার আলতাফ মোল্লার ছেলে আশিক ওরফে লাদেন মোল্লা।

সম্প্রতি আশিক জোর পূর্বক ওই ছাত্রীর ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে। বিষয়টি শারমিন তার পরিবারকে জানলে সোমবার বিকেলে ছাত্রীর বাবা জাকির বেপারী ও মা শাপলা বেগম আশিককে ছবি তোলার ঘটনা জিজ্ঞাসা করায় আশিক তাদের মারধর করে আহত করে। তাদের মারধরে বাঁধা দিতে গেলে শারমিনের চাচী পারুল বেগম ও বেবী বেগমকেও মারধর করে আহত করে লাদেন ও তার লোকজন।

এ ঘটনায় শারমিনের চাচা আজিজ মোল্লা সোমবার রাতে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্ত আশিক ওরফে লাদেন, তার বাবা আলতাফ মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লার ছেলে আনিচ মোল্লা, সহদর আরিফ মোল্লাকে পুলিশ সোমবার রাতে গ্রেফতার করেছে।

অন্যদিকে উপজেলার তালতা গ্রামের মৃতু হাজী মকবুলের ছেলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন মামলা ১৮৬/১৭ আসামী রবিউল ইসলামকে পুলিশ সোমবার রাতে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের মঙ্গলবার সকালে বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।