অবহেলিত ও জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে

ঝালকাঠির তিন গ্রামের চাওয়া একটি রাস্তা


ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চন্দ্রকান্দা চৌমাথা নামক স্থান থেকে দেওপাশা, রাজপাশা এবং চৌদ্দবুড়িয়া যাওয়ার রাস্তাটি চরমভাবে অবহেলিত ও জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। চলাচলের জন্য একেবারে অনুপযোগী এই রাস্তাটি এখন যেন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে।

চন্দ্রকান্দা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চন্দ্রকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চৌদ্দবুড়িয়া দারুল উলুম মাদরাসা এবং গোচরা ইসলামিয়া হোসাইনিয়া দাখিল মাদরাসাসহ বিভাগীয় শহর বরিশাল এবং উপজেলামুখী বিভিন্ন লোকজনের যাতায়াতের মাধ্যম এই রাস্তা। বিশেষ করে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গামী ছাত্র-ছাত্রীদের চরম দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে জরাজীর্ণ রাস্তাটি।

সরেজমিনে রাস্তার বিভিন্ন জায়গা ঘুরে দেখা যায়, অসংখ্য স্থানে ছোট-বড় খানাখন্দ। এসব স্থানে বৃষ্টির পানি জমে মানুষ চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে উপজেলা, জেলা শহরের সঙ্গে যোগাযোগকারী পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রাস্তাটির কারণে। বেশ কয়েকটি স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে।

বর্ষাকালে এবং বৃষ্টিপাত হলে রোগী ও গর্ভবতী মায়েদের চিকিৎসাসেবা দিতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় এখানকার বাসিন্দাদের। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের যানবাহন চলাচল করার প্রায়ই ঘটছে ছোটখাটো দুর্ঘটনা।

সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তার বলেন, রাস্তাটি জনগুরুত্বপূর্ণ। এটি সংস্কারের জন্য আমি দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করছি। বরাদ্দ পেলে হয়তো সংস্কার করা হবে।

এলাকার বাসিন্দাদের দাবি, অন্তত কোমলমতি শিক্ষর্থীদের বিবেচনায় রাস্তাটি অনতিবিলম্বে মেরামত করে যাতে ব্যবহার উপযোগী করা হয়।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।