তাহিরপুরে তিন মাদকসেবী আটক


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সদরের বাজারে মাদক সেবন করে মাতলামী করে বিশৃস্খলা কালে দুই মাদকাসক্তকে ও ভারতীয় নাসির উদ্দিন বিড়িসহ এক জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হল,তাহিরপুর উপজেলা সদর ইউনিয়নের ভাটি তাহিরপুর গ্রামের মৃত মফিজ আলীর ছেলে রিয়াজুর রহমান,একই গ্রামের শামসুল হকের ছেলে ইয়াসমিন মিয়া ও হুমায়ুন মিয়া উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

শুক্রবার(০৭,০৮,২০২০) দুপুরে আটককৃতদের মামলা দায়ের পূর্বক আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়,উপজেলার সদরের বাজারে মাদক সেবন করে বৃহস্পতিবার রাতে বাজারে যাতায়াতকারী লোকজনের সাথে অসদাচরণ ও বিশৃস্খলা ঘটানোর চেষ্টা করলে স্থানীয় এলাকাবাসী জানান থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই দীপঙ্কর বিশ্বাস ভাটি তাহিরপুরের রিয়াজুর রহমান ও একই গ্রামের ইয়াসিন মিয়া নামে দুই মাদকাসক্তকে আটক করেন।

অন্যদিকে,এসআই দীপঙ্কর বিশ্বাস বলেন,সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান (বিপিএম)’র বিশেষ নির্দেশনায় থানার ওসি মোঃ আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে উপজেলার উওর শ্রীপুরের শ্রীপুর বাজার হতে বৃহস্পতিবার রাতে হুমায়ুনকে কার্টন ভর্তি ভারতীয় বিড়ির চালানসহ আটক করা হয়। পরে তার হেফাজত হতে পাঁচ(৫)হাজার পিস আমদানি নিষিদ্ধ অতিরিক্ত নিকোটিনযুক্ত ভারতীয় নাসির বিড়ি জব্দ করা হয়।

এদিকে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ভারতীয় নাসির উদ্দিন বিড়ির মহাল ও মাদকদ্রব্য চালাচ্ছে একটি সিন্ডিকেট। তাদের নিয়োজিত লোক জনের মাধ্যমে চালাচ্ছে। আর তাদের কাছ থেকে কিছু সাংবাদিক পরিচয়ধারীরা মাসোহারা নিচ্ছে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি দাবি জানান স্থানীয় এলাকাবাসী। না হলে উঠতি বয়সী যুব সমাজ ধংশ হয়ে যাবার আশংকায় আতংকিত অভিভাবকগন।

এদিকে গোপন সূত্রে জানাযায়, সিন্ডিকেট ও সাংবাদিক নামধারীরা নাসির উদ্দিন বিড়ি মহালে ১০ হাজার টাকা মসোয়ারার পাশাপাশি খাসির দাবী করে। আর এতেই বিপত্তি ঘটে। না দেওয়ায় বর্তমান বিড়ি মহালের দায়িত্বে যারা আছে তাদের সরিয়ে নতুন করে নিয়োগ করবে যারা তাদের চাহিদা মেনে চলবে।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আতিকুর রহমান আটকের ঘটনায় সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,এই উপজেলায় কোন অন্যায় কাজ করতে দেওয়া হবে না। মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। গত কয়েক দিন ধরে অভিযান চালিয়ে ভারতীয় বিড়িসহ মাদক ব্যবসায়ীদেরকে আটক করে আদালত পাঠানো হয়েছে।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]