নতুন বছরকে বরণ বরিশালবাসী রাখি বন্ধন আর মঙ্গল শোভাযাত্রায়


বরিশাল :ঢাকের তালে তালে রাখি বন্ধন, আর মঙ্গল শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে নতুন বাংলা বর্ষকে বরণ করে নিয়েছে বরিশালবাসী । বর্ষকে বরণকে ঘিরে আজ রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে বঙ্গবন্ধু উদ্যান ও সার্কিট হাউস প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসন, বরিশাল বিএম (ব্রজমোহন) স্কুল মাঠে উদীচী শিল্পগোষ্ঠী, অশ্বিনী কুমার হল প্রাঙ্গন থেকে চারুকলা ও সদর রোডে খেলাঘরের আয়োজনে বাঙালির ইতিহাস ঐতিহ্যের নানান আয়োজন করা হয়।

সকাল ৭ টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজেনে বঙ্গবন্ধু উদ্যান থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। যা নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে সার্কিট হাউজ চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

এছাড়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সার্কিট হাউজে দিনব্যাপি সাংস্কৃতিক উৎসব, বঙ্গবন্ধু উদ্যানে ঘুড়ি উৎসেবর আয়োজন করা হয়। এছাড়া চারুকলার আয়োজনে আজ সকাল ৭ টা ৪৫ মিনিটে নগরের অশ্বিনী কুমার হলে সংগীতের মধ্য দিয়ে নতুন বর্ষকে বরন করে নেয়া এরপর মুক্তিযোদ্ধা ও গুনিজনদের সন্মাননা হিসেবে উত্তরীয় পরিয়ে দেয়া হয় এবং দেশের পতাকা প্রদান করা হয়।

পরে সকাল ৮ টায় রাখি পড়িয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা-১৪২৬ এর শুভ সূচনা করা হয়। অশ্বিনী কুমার হল চত্তর থেকে নানান বর্ণ পেশার মানুষের অংশগ্রহনে মঙ্গল শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে পূরনায় সেখানেই এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় অগ্রভাগে মুক্তিযোদ্ধারা জাতীয় পতাকা বহন করে, এরপরপরই ছিলো ঘোড়সওয়ার বাহিনী।

শোভাযাত্রার মূল ব্যানারে ছিলো চারুকলার শিল্পী ও মঙ্গল শোভাযাত্রার কর্মীরা। এরপর একে পালকি, পাখি, কুমির, হাতিসহ নানান প্রাণীর প্রতিকৃতি শোভাযাত্রায় বহন করা হয়। শোভাযাত্রায় প্রতিটি শিশুর হাতে মুকুট, মুখোশ, রাখি, ফুল তুলে দেয়া হয়।

শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান, মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন মানিক- বীর প্রতীক, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল প্রমুখ।

শোভাযাত্রা শেষে অশ্বিনী কুমার হল প্রাঙ্গনে শিশু-কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা ও লোকজ মেলা শুরু হয়।  অপরদিকে সকাল সাড়ে ৬টায় নগরের বিএম (ব্রজমোহন) স্কুল প্রাঙ্গনে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী বরিশাল জেলা সংসদের আয়োজনে প্রভাতী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বৈশাখকে বরন করে নেয়া হয়।  ঢাক উৎসব আর রাখি বন্ধনের পরপরই সকাল সাড়ে ৮ টায় বের করা হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা।

শোভাযাত্রাটি নগরের বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিণ শেষ বিএম স্কুল মাঠে শেষ হয়। শোভাযাত্রার শুরুতে হাতির পদচারনা এবং ভেতরে পাখি, পালকি, মাছসহ বিভিন্ন ধরনের প্রতিকৃতি বহন করা হয়।

পরে সকাল ১০ টায় চিত্রাংকন প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি এবছরও উদীচীর আয়োজনে বিএম স্কুল মাঠে তিনদিন ব্যাপী বৈশাখী মেলা বসেছে, যেখানে প্রতিদিন সন্ধ্যায় থাকছে সাংস্কৃতিক অুনষ্ঠানের আয়োজন। অপরদিকে খেলাঘর বরিশালের উদ্যেগে নগররের সদর রোডে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়, সেখান নৃত্য, গান ও রাখি বন্ধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এদিকে সকাল থেকে সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ ও বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে চলছে বর্ষবরণের নানান আয়োজন। পাশাপাশি নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাব, খেয়ালী গ্রুপ থিয়েটার, শব্দাবলী গ্রুপ থিয়েটার, বরিশাল নাটকের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হচ্ছে।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।