নলছিটিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের,শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম 


নিজস্ব প্রতিবেদক॥ 
নলছিটিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ও সাধানর ডায়রির ( জিডি) সাক্ষি থাকায়  এক শিক্ষার্থীকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধা সোয়া ছয়টার দিকে রুহুল আমিন হাওলাদার বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত  শিক্ষার্থী হলেন, নাহিদ হাসান সে ঢাকার একটি পলিটেকনিক কলেজের ছাত্র তার বাড়ি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার  নান্দিকাঠি গ্রামের কামাল হোসেন হাওলাদারের ছেলে। আহত নাহিদ হাসানের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এঘটানায় নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান আহত পরিবার। আহত নাহিদ হাসান জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আমার মামা রুহুল আমিন নলছিটি থানায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে শনিবার (৬ জুন) একটি সাধারন ডায়রি করেন।য়ার নং ১৯৫। ওই ডায়রির প্রথম সাক্ষি থাকায় শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধা সোয়া ছয়টার দিকে মামা রুহুল হাওলাদারের ২১ হাজার ছয়শত টাকা তার বাড়িতে দিতে যাই। এসময় হামলাকারী, মৃত বেল্লাল হোসেন এর পুত্র জহির আলম ( ৪৫),সামসুল আলম (৫৫) জহির আলমের স্ত্রী মোসাঃ পারভিন বেগম ( ৩৫) তার মেয়ে মোসাঃ জান্নাতি (২০), ছেলে মোঃ নাঈম ( ২২ )সহ ৩/৫ জন দেশীও অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। পরে ডাকচিৎকার দিলে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নলছিটি উপজেলা স্বস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন ,পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।
হামলাকারীরা ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার  নান্দিকাঠি গ্রামের বাসিন্দা। এদিকে  ঘটনার পরে দিন আহত নাহিদের পিতা কামাল হোসেন ও মামা রুহুল আমিনকে নানা ধরনের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে। এঘটনায় নলছিটি থানার ওসি তদন্ত আব্দুল হালিম তালুকদার বলেন, আহত নাহিদ হাসানের বাবা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]