ওয়ারেন্টভুক্ত আসামির তথ্য পুলিশকে দেয়ার সন্দেহে

পটুয়াখালীতে গ্রাম পুলিশকে পেটালেন আ.লীগ নেতার ভাই

  • 13
    Shares

পটুয়াখালী : পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে পলাতক ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নুরুজ্জামান খানের তথ্য পুলিশকে দেয়ার সন্দেহে গ্রাম পুলিশকে (দফাদার) পেটালেন আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মিজানুর রহমান লাভলুর চাচাতো ভাই। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার উত্তর রামপুর গ্রামে কাজী বাড়িতে।

আহত গ্রাম পুলিশ (দফাদার) মো. শফিকুল ইসলাম সোহাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গ্রেফতারকৃত নুরুজ্জামান একই এলাকার সোহরাব খানের ছেলে।

আহত মো.শফিকুল ইসলাম সোহাগ অভিযোগ করেন, ওই দিন মাধবখালী ইউনিয়নের উত্তর রামপুর গ্রামে কাজী বাড়িতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে দীর্ঘ দিনের পলাতক হত্যা চেষ্টা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নুরুজ্জামান অবস্থান করছিলেন। খবর পেয়ে মির্জাগঞ্জ থানার এসআই আমিনুল ইসলাম তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে আসামি নুরুজ্জামানকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এর জের ধরে মাধবখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি কাজী মিজানুর রহমান লাভলুর চাচাতো ভাই কাজী নজরুল ইসলাম ও কাজী কামরুল ইসলাম পুলিশকে তথ্য দেয়ার সন্দেহে আমাকে পিটিয়ে আহত করে।

এ বিষয়ে মাধবখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী মিজানুর রহমান লাভলু মোবাইল ফোনে জানান, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নুরুজ্জামানকে পুলিশকে ধরিয়ে দেয়া নিয়ে গ্রাম পুলিশের দফাদার মো. শফিকুল ইসলাম সোহাগ এবং আমার চাচাতো ভাইদের সঙ্গে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়েছে। তাকে কোনো মারধর করা হয়নি।

মির্জাগঞ্জ থানার ওসি মো. মহিববুল্লাহ জানান, ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে কোনো লিখিত অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


  • 13
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]