প্রেমিককে বিয়ে করতে না পেরে অধ্যাপিকার আত্মহত্যা

  • 166
    Shares

ভারতের বিদ্যাসাগর কলেজের এক অধ্যাপিকা বিয়ের জন্য প্রেমিককে রাজি করাতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় গ্রেফতারও করা হয়েছে প্রেমিক সুমনকে।নিহত অধ্যাপিকার নাম শুভ্রা মণ্ডল। তিনি বিদ্যাসাগর কলেজের জিওলোজি বিভাগে অধ্যাপনা করতেন।

আত্মহত্যার আগে প্রেমিককে হোয়াটসঅ্যাপে ছবি পাঠিয়ে শেষবারের মতো বিয়ের অনুরোধ করেন তিনি। বিয়ের জন্য প্রেমিককে রাজি না করাতে পেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা পুলিশের।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, শুভ্রার সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিলো করিধ্যার বাসিন্দা সুমন চট্টপাধ্যায়ের। নানা অজুহাত দেখিয়ে বিয়ের কথা থেকে সরে আসতেন সুমন। এই দু’জনের মধ্যে সমস্যা চরমে ওঠে। রবিবার রাতে আত্মহত্যার আগেও দুজনের ঝগড়া হয় বলে শুভ্রার পরিবারের দাবি।

আত্মহত্যার রাতে খাওয়ার পর নিজের ঘরে চলে যান শুভ্রা। পরে দীর্ঘক্ষণ দরজা না খোলায় বাড়ির লোকেদের সন্দেহ হয়। দরজা খুলে শুভ্রাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। পাশেই রাখা ছিল তার মোবাইল। দেখা যায়, আত্মহত্যা করার আগেই সুমনকে শেষবারের মতো ছবি পাঠিয়ে বিয়ের করার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু সুমন তাতেও রাজি না হওয়ায় চরম সিদ্ধান্ত নেন শুভ্রা।এই ঘটনার পর সিউড়ি থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। গ্রেফতারও করা হয়েছে সুমনকে।


  • 166
    Shares

বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।