ফাইনালে শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী


 

স্পোর্টস ডেস্ক ॥

করোনার এই লম্বা বিরতিতে জাতীয় দলের পেসাররা নিজেদের ফিটনেস এবং ছন্দ ধরে রাখতে দারুণ কাজ করেছে। তার প্রমাণও মিলেছে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে। জাতীয় দলের দুই তারকা পেসার রুবেল হোসেন এবং তাসকিন আহমেদ ছিলেন দারুণ ছন্দে। কোচ রাসেল ডমিঙ্গোও সন্তুষ্টি জানিয়েছেন তাদের পারফরম্যান্সে।

আজ এই দুই তারকা পেসার ভিন্ন দুই দলের হয়ে প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনালে শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নামবে। রুবেল খেলছেন মাহমুদউল্লাহ একাদশের হয়ে। আর তাসকিন নাজমুল একাদশের হয়ে মাঠ মাতাচ্ছেন। আর দুই পেসারেরই নিজেদের দলের হয়ে শিরোপা জেতার লক্ষ্য।

ফাইনালের আগের দিন গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রুবেল শিরোপা জয়ের লক্ষ্য নিয়ে বলেন, ‘এটা তো আসলে ফাইনাল ম্যাচ। সেটা যে পর্যায়ের হোক না কেন; ফাইনাল তো ফাইনালই। অবশ্যই জয়ের জন্যই মাঠে আসবো। ফাইনাল ম্যাচ তো অবশ্যই জয় পেতে চাইবো।’

রুবেল আরও যোগ করেন, ‘ফাইনাল নিয়ে আমরা অতটা চিন্তিত না। কারণ এর আগে আমরা অনেক ফাইনাল খেলেছি। আমাদের প্রস্তুতি সাধারণই আছে। আমরা যদি সবার ভূমিকা বুঝি এবং সবার পারফরম্যান্সটা সবাই দেখাতে পারি তাহলে ইনশাল্লাহ ফাইনালে ইতিবাচক ফলাফলই আসবে।’

এদিকে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্টি জানিয়েছেন রুবেল। এই পেসার যোগ করেছেন, ‘আমি নিজের বোলিং নিয়ে সন্তুষ্ট। কারণ আমি যেভাবে বোলিং করতে চাচ্ছি, আমার এবং দলের পরিকল্পনা অনুযায়ী আমার কাছে মনে হয় আমি সেভাবে বোলিং করছি বিশেষ করে নতুন বলে। আমার কাছে মনে হয় সবকিছু ঠিক আছে। তাই আলহামদুলিল্লাহ আমি অনেক খুশি।’

এদিকে তাসকিনের দল নাজমুল একাদশ প্রেসিডেন্টস কাপে আছে দারুণ ফর্মে। চার ম্যাচে তিন জয় পেয়েছে দলটি। ফাইনালের আগেও সেই কথাটা টেনে আনলেন তাসকিন। শিরোপা জেতার প্রত্যাশা করে তাসকিন বলেন, ‘ফাইনালে লক্ষ্য থাকবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। কারণ আমাদের দল চারটার মধ্যে তিনটায় জিতেছে। আর সবাই অনেক এফোর্ট দিচ্ছে এবং অনেক পরিশ্রম করছে। মাঠে আমরা সবাই ফিল্ডিং বলেন, ব্যাটিং বলেন সবাই সবার জায়গা থেকে সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছে। তো চেষ্টা থাকবে ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার।’

নিজের বোলিং নিয়ে তাসকিন জানিয়েছেন, তিনি তার বোলিংয়ে খুশি হলেও আরো ভালো ফল পেতে পরিশ্রম করতে চান। তাসকিন যোগ করেন, ‘হ্যাঁ, আল্লাহর রহমতে এই টুর্নামেন্টে আমাদের সব ফাস্ট বোলাররাই ভালো করছেন। সবাই বেশ ভালো, মিতব্যয়ী এবং নতুন-পুরোনো বলে উইকেট নিচ্ছে। নিজেরটা মূল্যায়ন করতে চাইলে আগের থেকে ভালো। আরও উন্নতি করতে হবে। তবে আগের থেকে ভালো হচ্ছে। আমি কাজ করতেছি, আল্লাহ যদি চায় সামনে আরো ভালো কিছু হবে।’


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]