ফেঁসে গেলেন কলাপাড়ার ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদার


পটুয়াখালী : কলাপাড়ায় অবশেষে ফেঁসে গেলেন নারী ইউপি সদস্যকে ‘দুঃশ্চরিত্রে’র বলা সেই ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদার। নারী জনপ্রতিনিধির দায়েরকৃত ৫০ লক্ষ টাকার মানহানির মামলায় সেই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন বিজ্ঞ আদালত। বিজ্ঞ কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট এএইচএম ইমরানুর রহমানের আদালত ১৯ মে রবিবার বিচার বিভাগীয় তদন্ত শেষে ডালবুগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদারের বিরুদ্ধে সমন জারির এ আদেশ প্রদান করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ৩রা এপ্রিল রাতে ডালবুগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদার নারী ইউপি সদস্য সাহানারা’র বিরুদ্ধে ’দুঃশ্চরিত্রে’র নারী বলে মান হানিকর তথ্য সম্বলিত লিখিত বক্তব্য স্বাক্ষর করে কলাপাড়া প্রেসক্লাব হলরুমে সংবাদ সম্মেলন করেন। এসময় ওই নারী ইউপি সদস্যকে ’দুঃশ্চরিত্রের’ নারী বলার এমন কি তথ্য প্রমান আছে? সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে পুন:রায় ওই নারী ইউপি সদস্যকে দুঃশ্চরিত্র নারী ছাড়াও আরও মানহানিকর অপবাদ দেন তিনি। চেয়ারম্যানের মানহানিকর বক্তব্য সম্বলিত সংবাদ সম্মেলনের এ তথ্য গনমাধ্যমে প্রকাশ পেলে নারী ইউপি সদস্য সাহানারা ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদারের নামে ৮এপ্রিল বিজ্ঞ কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৫০ লক্ষ টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলার অভিযোগ বিবেচনায় নিয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেন। এরপর বিচার বিভাগীয় তদন্তে মানহানির বিষয়ে সত্যতা পাওয়ায় বিজ্ঞ আদালত অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদার’র বিরুদ্ধে ১৯ মে রবিবার সমন জারি করেন।

এদিকে নারী ইউপি সদস্যকে ‘দুঃশ্চরিত্রে’র বলা সেই ইউপি চেয়ারম্যান সালাম সিকদারের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত সমন জারি করায় আদালতের আদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় একাধিক নারী সংগঠন।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]