বরিশালে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে ২০ কোটি টাকা নিয়ে জুয়েলারি মালিক লাপাত্তা


বরিশাল নগরীর বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে গোপাল কর্মকর নামে এক জুয়েলারি মালিকের বিরুদ্ধে। এই টাকা নিয়ে তিনি লাপাত্তা হয়েছেন। এ ঘটনায় স্বর্ণ ব্যবসায়ির স্ত্রীসহ দুই মেয়েকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পলাতক গোপাল কর্মকর বরিশাল নগরীর কাটপট্টি রোডের ‘আরদি অলংকার ভবন’র মালিক। এবং তিনি ওই এলাকার মোনালিসা মার্কেটের ‘রুপা ভবন’র বাসিন্দা।

বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতয়ালি মডেল থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) সুমন জানান, ‘আরদি অলংকার ভবন’ মালিক গোপাল কর্মকর ‘রুপা জনকল্যাণ সমবায়’ ও তারুণ্য বহুমূখী নামে দুটি সমিতি খুলে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে অন্তত ২০ কোটি টাকার বেশি হাতিয়ে নেয়। এছাড়াও তিনি জমি বিক্রির কথা বলেও অনেকের কাছে ব্যাংক চেক দিয়েও টাকা নিয়েছেন।

কিন্তু এই টাকা না দিয়ে জুয়েলারি মালিক গোপাল কর্মকর হঠাৎ করে লাপাত্তা হয়ে যান। সবশের্ষ শুক্রবার রাতে তার স্ত্রী রুপা কর্মকর, দুই মেয়ে মিথিলা কর্মকর (২০) এবং রথি কর্মকর (১৮) বাসা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এই সময় পাওনাদার অন্তত অর্ধশত ব্যক্তি খবর পেয়ে তাদের বাসা ঘেরাও করেন। খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে তাদের আটক করে থানা নিয়ে আসা হয়।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, এই ঘটনায় বিশ্বনাথ বিষু নামে এক পাওনাদার ‘আরদি অলংকার ভবন’র মালিক গোপাল কর্মকরের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে একটি মামলা করেছেন। সেই মামলায় তার স্ত্রীসহ দুই মেয়েকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এখন গোপাল কর্মকরকেও গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নিয়োজিত রয়েছে।’


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]