বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলগুলো পূর্ণ স্বাধীনতা পাচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের সমস্ত টেলিভিশন চ্যানেল পূর্ণ স্বাধীনতা উপভোগ করছে। বুধবার অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) একটি প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তার সঙ্গে সাক্ষাত করতে গেলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সাক্ষাত শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ বিষয়ে অবহিত করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এক সময়ে বাংলাদেশের কেবল একটি টেলিভিশন চ্যানেল, বিটিভি (বাংলাদেশ টেলিভিশন) ছিল এবং ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পরে এই মিডিয়া শিল্পকে বেসরকারি খাতের জন্য উন্মুক্ত করে।

অ্যাটকো নেতারা বলেন, তারা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ ব্যবহার করে সমস্ত বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর সম্প্রচার শুরু করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এবং ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের মালিক সালমান এফ রহমান ও তথ্য সচিব আব্দুল মালেক এ সময় উপস্থিত ছিলেন। অ্যাটকোর চেয়ারম্যান অঞ্জন চৌধুরী, ইকবাল সোবহান চৌধুরী, মোজাম্মেল হক বাবু, আহমেদ জোবায়ের প্রমুখও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]