বাবুগঞ্জের মীরগঞ্জ খেয়াঘাটের কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষনা


স্টাফ রির্পোটার : বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার মীরগঞ্জ খেয়াঘাটের কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষনা করা হয়েছে। মঙ্গলবার জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মানিকহার রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জানা গেছে, জেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রনাধীণ মীরগঞ্জ খেয়াঘাট ১৪২৬ সালের জন্য দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দেয়ার নিমিত্তে বরিশাল জেলা পরিষদে ইজারা দরপত্র আহ্বান করা হয়। বিজ্ঞ বাবুগঞ্জ সহকারী জজ আদালতের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে মীরগঞ্জ খেয়াঘাটের ইজারা কার্যক্রম আপাতত স্থগিতের ঘোষনা দিয়েছে জেলা পরিষদ। এদিকে এর আগে সোমবার বরিশাল জেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রানাধীন মীরগঞ্জ খেয়াঘাট সর্বোচ্চ দরদাতাকে বুঝিয়ে দিতে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে বাবুগঞ্জ সহকারী জজ আদালত।

সর্বোচ্চ দরদাতা আলমগীর হোসেনের দায়েরকৃত মামলার সোমবার শুনানী শেষে আদালতের বিচারক তাররাহুম আহম্মেদ আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে জবাব চেয়ে এই নোটিশ প্রদান করেন। আদালত সূত্রে জানা গেছে, জেলা পরিষদের মীরগঞ্জ খেয়াঘাটের ৬ষ্ঠবার পর্যন্ত দরপত্র আহবান করা সত্বেও সম্ভাব্য মূল্য দরপত্রে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে ৭মবার ৭৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং দ্বিতীয় দরদাতা ৬৬ লাখ টাকায় টেন্ডার পাওয়ার জন্য আবেদন করেন।

অথচ জেলা পরিষদের নথিতে শেষবার ইজারার কথা থাকলেও এবং নীতিমালা অনুযায়ী সর্বোচ্চ দরদাতাকে ঘাট বুঝিয়ে না দেয়ায় গত ২৮ মে বিজ্ঞ বাবুগঞ্জ সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করলে বিচারক সোমবার শুনানী শেষে সর্বোচ্চ ইজারাদারকে খেয়াঘাট কেন দেয়া হচ্ছে না মর্মে ৭ কার্য দিবসের মধ্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেন।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।