বিদ্যালয়টি যেন একটি লাল সবুজ পতাকা ও আদর্শলিপি বই

  • 40
    Shares

১৯৪৩ সালে প্রতিষ্ঠিত বানারীপাড়ার মলুহার ওয়াজেদিয়া ২য় মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি যেন একটি লাল সবুজ পতাকা ও আদর্শলিপি বই।৭৬ বছর পূর্বে এই বিদ্যালয়টি অ,আ ও ক,খ শিখানোর মধ্য দিয়ে তার যাত্রা শুরু করে। আদর্শ এ বিদ্যালয়টি সেই থেকে জ্ঞানের আলোয় আলোকিত করছে গ্রামীণ জনপদ ইলুহার ইউনিয়নের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের। তাদের মধ্যে দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা জাগ্রত করতে ক্লাস রুটিন অধ্যায়নের পাশাপাশি আদর্শ সমাজ ও সোনারবাংলা বিনির্মাণে করণীয় বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন এক ঝাঁক সৃষ্টিশীল উদ্যোমী শিক্ষক ।

কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশের প্রতি প্রকৃত ভালোবাসা ধারণ করাণোর দৃঢ় প্রয়াসে সম্পূর্ণ বিদ্যালয় ভবনটি জাতীয় পতাকার আদলে রঙ তুলির আঁচরে সাজানো হয়েছে। এখানে শুধু পুথিগত বিদ্যা অর্জনই নয় একজন আদর্শ সোনার মানুষ হিসেবে নিজেদেরকে গড়ে তুলতে বিভিন্ন শিক্ষণীয় বিষয় তাদেরকে রপ্ত করানো হচ্ছে। বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে ২৮০জন কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে।লেখাপড়ার মান,ফলাফল এবং খেলাাধুলাসহ সবদিক দিয়েই বিদ্যালয়টি উপজেলার মধ্যে একটি অনন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ বিদ্যালয়ের শিশু শিক্ষার্থীদের চলন-বলন দেখলে মনে হবে ওরা যেন প্রত্যেকেই একটি ফুটন্ত ফুল। বিদ্যালয়ের দু’টি ভবনের বাহির এবং ভিতরের চিত্র দেখলে মনে হয় যেন এটি একটি আদর্শলিপি বই। ভবনের কক্ষের দেয়ালে দেয়ালে বর্নমালা, মনীষীদের উক্তি ও রঙ ধনুর সাত রং ও প্রজাপতির মেলা সহ প্রকৃতির প্রতিচ্ছবি অঙ্কিত করে রাখা হয়েছে। রয়েছে শিক্ষণীয় মীনা কার্টুন।

এ প্রসঙ্গে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসিমা বেগম বলেন কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের মনের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে তিনি ও সকল শিক্ষক এবং ম্যানেজিং কমিটি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা শামিম আহসান বলেন শৈশবে শিক্ষার্থীদের মাঝে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতা,মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমের বীজ বপন করে দিতেই এ প্রয়াস। তার ক্লাষ্টারের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একইভাবে সাজানো হবে বলেও তিনি জানান।


  • 40
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]