বিস্ফোরক মামলায় চারজনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড


২০১৬ সালে ময়মনসিংহের বিস্ফোরক মামলায় চারজনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ফরিদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক। সোমবার দুপুরে স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মতিউর রহমান এ রায় দেন।দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ফরিদ মৃধা, শহিদুল ইসলাম, মহসীন মোল্লা ও নাহিদ মোল্লা। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাদের বাড়ি ফরিদপুরের সদরপুরসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায়।


স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট গোলাম রব্বানী বাবু মৃধা বলেন, ময়মনসিংহের বিস্ফোরক মামলার আসামি নাহিদ মোল্লাকে ভাঙ্গা বাজার থেকে ২০১৬ সালের ২৬ আগস্ট গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় নাহিদ নিজেকে আনসারুল্লাহ বাংলা ভাই দলের সদস্য উল্লেখ করে পুলিশকে বলেন, এই এলাকার আঞ্চলিক কমান্ডার ফরিদ শেখ, তার নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছি।

তার দেয়া তথ্যমতে ফরিদপুরের জেলা পুলিশ সদরপুর উপজেলার আলমনগর এলাকার ফরিদ মৃধার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ফরিদসহ বাকিদেরকে গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের কাছে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটার গান, ১২টি হাতবোমা ও বেশ কিছু বোমা তৈরির বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই সদরপুর থানার ওসি তদন্ত আলীমুজ্জামান বাদী হয়ে বিস্ফোরক আইনে চারজনকে আসামি করে মামলা করেন।

অ্যাডভোকেট গোলাম রব্বানী আরও বলেন, ওই মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত প্রত্যেককে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।