ভালোবাসা দিবসে মেহেন্দীগঞ্জে দাফন হলো প্রেমিকার—পালিয়েছে প্রেমিক

  • 375
    Shares

ভোলায় প্রেমিকের সঙ্গে অভিমান করে ছাদ থেকে লাফ দিয়ে এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় শিল্পকলা রোডের সামনে শাওন ভিলার ছাদ থেকে অভিমান করে লাফ দেয় ওই ছাত্রী। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালে নিলে চিকিৎসক সেখান থেকে ঢাকায় রেফার করে দেয়। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সে মারা যায় ওই ছাত্রী। এই ঘটনার পরে প্রেমিক পলাতক রয়েছে। শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) কলেজ ছাত্রীকে তার গ্রামের বাড়ি মেহেন্দিগঞ্জে দাফন করা হবে।

ভোলা থানার ওসি তদন্ত মনির হোসেন মিয়া বলেন, এই ঘটনায় মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দেখা হবে।

জানা যায়, ভোলা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের শিল্পকলা রোডের সমাজসেবা অফিসের ফিল্ড ম্যানেজার মো. নাছির উদ্দিনের ছোট মেয়ে এবং ভোলা সরকারি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী সাদিয়া আফরি। তার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে ভোলা পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেনের ছেলে বরিশাল বিএম কলেজের ছাত্র ইয়ান চৌধুরীর প্রেমের সর্ম্পক চলে আসছিল। কিন্তু হঠাৎ করে ইয়ান সাদিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের ইতি টানতে চায়। দুজনের মধ্যে মনোমালিন্যর জেরে মেয়েটি আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে সাদিয়ার সহপাঠীরা।

বুধবার ইয়ানের সঙ্গে সাদিয়া দেখা করতে গেলে সারাদিন ঘুরাঘুরি করে বিকালে ইয়ান সাদিয়াকে তার বাসায় দিয়ে আসে। এই নিয়ে সাদিয়ার পরিবার ইয়ানের সঙ্গে দেখা করা নিয়ে বকাবকি করে। পরে সন্ধ্যায় সাদিয়া বাসা থেকে বের হয়ে পার্শ্ববর্তী শাওন ভিলার ছাদে গিয়ে লাফ দেয়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।


  • 375
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]