সভাপতি আব্দুল করিম, সাধারণ সম্পাদক মনিরুল

মেহেরপুর ইমারত নির্মাণকারী শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন


মেহেরপুর প্রতিনিধি : মেহেরপুর জেলা ইমারত নির্মাণকারী শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রিবার্ষিক নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে সভাপতি পদে আব্দুল করিম ও সাধারণ সম্পাদক পদে মনিরুল ইসলাম বিজয়ী হয়েছেন।

গতকাল সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উৎসব মুখর পরিরেশে ভােটগ্রহণ পর্ব চলে। ভােট গণনা শেষে এদিন রাত ১১টার দিকে ইমারত নির্মাণকারী শ্রমিক ইউনিয়নের ত্রিবার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল ঘােষণা করা হয়। এতে সভাপতি পদে আব্দুল করিম মােমবাতি প্রতীক নিয়ে ৯৭৩ ভােট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শহিদুল ইসলাম হারিকেন প্রতীক নিয়ে ৫৪৫ ভােট পান। সাধারণ সম্পাদক পদে মনিরুল ইসলাম দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে ৪১৪ ভােট পেয়ে। বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নওশাদ আলী ছাতা প্রতীক নিয়ে ৩৮৬ ভােট পান। এছাড়া অন্যান্য পদের বিজয়ীরা হলেন সহসভাপতি পদে নজরুল ইসলাম সিলিং ফ্যান প্রতীকে ৭৭১ ভােট, সহ সাধারণ সম্পাদক পদে রাসেল দেওয়াল ঘড়ি প্রতীকে ৬৬৭ ভােট, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আলেক উদ্দিন

চাকা প্রতীকে ৪৭২ ভােট, কোষাধ্যক্ষ পদে খন্দকার নাফিজুর আম প্রতীক নিয়ে ৪৩০ ভােট, প্রচার সম্পাদক পদে মিলন আলী মাইক প্রতীকে ৫২৭ ভােট, দফতর। সম্পাদক পদে মােতালেব শেখ করাত প্রতীকে ৫১৪ ভােট, প্রমিক কল্যাণ সম্পাদক পদে জালাল উদ্দিন এরােপ্লেন প্রতীকে ৫১২ ভােট, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে ইস্রাফিল হােসেন ব্যাটবল প্রতীকে ৬১৭ ভােট পেয়ে বিজয়ী হন। এছাড়া কার্যকারী সদস্য পদে মজনু সরদার চশমা প্রতীকে ৬১৭ ভােট, মাজেদুল হক তলােয়ার প্রতীকে ৫৪৪ ভােট, ছাবদার আলী মােরগ প্রতীকে ৪৮৪ ভােট, সাইফুল ইসলাম কবুতর প্রতীকে ৪৫৪ ভােট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

নির্বাচন পরিচালনায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন অ্যাড. ইব্রাহিম শাহিন, সহকারী নির্বাচন কমিশনার ছিলেন আমিনুল ইসলাম খােকন, অ্যাড. আসাদুজ্জামান। আসাদ, মিজানুর রহমান হিরণ ও রাহিনুজ্জামান পলেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি শাহ দারা খানসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]