ময়মনসিংহে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র হচ্ছেন টিটু


ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের (মসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচন হচ্ছে না। মেয়র পদে বৈধ ঘোষিত ২ প্রার্থীর মধ্যে একজন জাতীয় পার্টি সমর্থিত জাহাঙ্গীর আহমদ আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) বিকালে সংবাদ সম্মেলন আওয়ামী লীগ প্রার্থী টিটুকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান জাতীয় পার্টি সমর্থিত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমদ।

জানা যায়, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন গত ৮ এপ্রিল মেয়র পদে ৫ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের প্রশাসক ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. ইকরামুল হক টিটু, জাতীয় পার্টি মনোনীত জাহাঙ্গীর আহমেদ, স্বতন্ত্র হিসেবে আবু মো. মুসা সরকার ও শহীদুল ইসলাম (স্বপন মন্ডল) এবং বিশ্বজিৎ ভাদুড়ী। এর মধ্যে আবু মো. মুসা সরকার জাতীয় পার্টির নেতা। তবে নিজের মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দলীয় সমর্থনের ডকুমেন্ট সংযোজন করতে ব্যর্থ হন তিনি।

পরে ১০ এপ্রিল মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিনে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি সমর্থিত দুই প্রার্থীর প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও ময়মনসিংহ আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান। আর বাকি তিনজনের প্রার্থিতা বাতিল ঘোষণা করেন তিনি। এমন অবস্থায় ১১টি সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে এবং ৩৩টি সাধারণ ওয়ার্ডে ছাড়া মেয়র পদে আর ভোট হওয়ার সুযোগ থাকলো না ময়মনসিংহ সিটিতে।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ মার্চ ৫ মে ভোটগ্রহণের দিন রেখে ময়মনসিংহ সিটির প্রথম ভোটের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল গত ৮ এপ্রিল, বাছাইয়ের দিন ছিল ১০ এপ্রিল এবং প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামীকাল ১৭ এপ্রিল। ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনে ৪৬টি ওয়ার্ড রয়েছে। নির্বাচনে সব কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। গত বছরের এপ্রিল মাসে ময়মনসিংহকে নতুন সিটি করপোরেশন করা হয়। ময়মনসিংহ দেশের দ্বাদশ সিটি করপোরেশন। গত বছরের ১ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস-সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে ময়মনসিংহকে সিটি করপোরেশন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।