যুবককে ময়লা খাওয়ানো মামলায় ৩ জনের রিমান্ড মঞ্জুর


স্টাফ রিপোর্টার : হিজলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামে এক যুবককে নির্মমভাবে নির্যাতনের পর ময়লা পানি খাওয়ানো মামলায় গ্রেফতার তিন আসামির বিরুদ্ধে ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। গতকাল বরিশালের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক সাব্বির মোঃ খালিদ এ নির্দেশ দেন। এর আগে গতকাল আসামিদের আদালতে প্রেরনের পাশাপাশি তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে৭দিন করে রিমান্ড চেয়ে বিচারকের কাছে আবেদন করেন হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক।

ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে গতকালই আসামিদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ৪ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয় বলে জানিয়েছেন আদালত সংশ্লিষ্ট জিআরও মোঃ রাশেদ। রিমান্ড প্রাপ্ত আসামিরা হল, ঘটনার মুল হোতা টুমচর গ্রামের মাহবুব সিকদার এবং তার দুই সহযোগী আব্দুর রশিদ মাতুব্বর ও কবির হোসেন সরদার। উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়। এতে দেখা যায়, একজন যুবকের হাত পিঠমোড়া দিয়ে বঁাধা অবস্থায় কয়েকজন ব্যক্তি তার উপর নির্যাতন চালাচ্ছে। এর এক পর্যায়ে ওই যুবকের বুকে এক ব্যক্তি পা দিয়ে চেপে ধরে বদনায় থাকা (শৌচ কাজে ব্যবহৃত) ময়লা তরল পদার্থ খাওয়াচ্ছে তারা। এ সময় ওই যুবক নিজেকে রক্ষার জন্য ধস্তাধস্তি করলেও হাত বঁাধা থাকায় শেষ রক্ষা হয়নি তার। নির্যাতিত যুবক আজম ব্যাপারী হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামের মহিউদ্দিন ব্যাপারী ছেলে।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর সংঘটিত এই ঘটনার ওই ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর তৎপরতা শুরু করে পুলিশ। এ ঘটনার ৮দিন পর নির্যাতিতের বাবা মহিউদ্দিন ব্যাপারী বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার ১০জনের নামোল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ২-৩জনকে আসামী করে হিজলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় আজমকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরন, নির্যাতন, চঁাদা দাবী এবং মানহানীর অভিযোগ করা হয়। পুলিশ ওই দিনই অভিযান চালিয়ে প্রধান অভিযুক্ত টুমচর গ্রামের মাহবুব সিকদার এবং তার দুই সহযোগী আব্দুর রশিদ মাতুব্বর ও কবির হোসেন সরদারকে গ্রেফতার করে।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]