বানারীপাড়ায়

সন্ধ্যা নদীর ভাঙন রোধ প্রকল্পের কাজে অনিয়মের অভিযোগ


বানারীপাড়া প্রতিনিধি: বানারীপাড়ায় সন্ধ্যা নদীর ভাঙন কবলিত নলশ্রী জামে মসজিদ রক্ষা প্রকল্পের কাজে অনিয়মের অভিযোগ করেছেন মসজিদ কমিটি ও এলাকাবাসী। বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. শাহে আলমের দাবীর কারনে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবঃ) মো. জাহিদ ফারুক মসজিদটি রক্ষায় জরুরী ভিত্তিতে জিও টেক্সব্যাগ ফিলিংয়ের নির্দেশ দেন। মসজিদ এলাকায় ৩ হাজার ২৪১টি জিও টেক্স ব্যাগে বালু ভর্র্তি করে ডাম্পিং ও ফিলিং করার জন্য জ্যোতি এন্টারপ্রাইজকে কার্যাদেশ দেন পানি উন্নয়ন বোর্ড।

কার্যাদেশ পেয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ শুরু করেন ঠিকাদার। মসজিদ কমিটির সদস্য মো. খলিল ও সাবেক ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন অভিযোগ করেন ঠিকাদার ৩ হাজার ২৪১ ব্যাগের পরিবর্তে ৩ হাজার ৪১ ব্যাগ বালু ভর্তি করেসামান্য ব্যাগ নদীতে ফেলে বাকী ব্যাগ মসজিদের পাশে ফেলে রেখেছেন । বিষয়টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জ্যোতি এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. মাসুমকে জানালে তিনি কোন কথা না শুনে তার খেয়াল খুশিমত কাজ করছেন।

এলাকাবাসীর বক্তব্য ভাঙন কবলিত স্থানে ব্যাগ না ফেলে কিনারে ফেললে ওই স্থানটি বালুর ওজনে আরো দুর্বল হয়ে যায়। ব্যাগ কম দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে ঠিকাদার মো. মাসুম বলেন, অফিসের নির্দেশ মোতাবেক কাজ করছেন। যে এলাকা নির্ধারন করে দেওয়া হয়েছে সেখানে সেভাবে ফেলানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ জানান বিষয়টি তাকে জানানো হয়নি। তিনি এ ব্যপারে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এ বিষয়ে বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রমজান আলী জানান জরুরী ভিত্তিতে কাজ করানো হচ্ছে। এ কাজ দেখার জন্য তিনটি কমিটি রয়েছে। প্রাক্কলনের বাইরে কাজ করার সুযোগ নেই। তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।


বরিশালট্রিবিউন.কম’র (www.barisaltribune.com) প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।