স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায় রাজাপুরের আবুল হোসেন


ঝালকাঠি : ঝালকাঠির রাজাপুরে ‘ডাকাত’ নাম ঘোঁচাতে ও সুস্থ জীবনে ফেরার আশায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন আবুল হোসেন ওরফে আবু তালুকদার নামে ত্রিশ বছর বয়সী এক যুবক।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় স্থানীয় রাজাপুর প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আবুল হোসেন উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের আনসার আলী তালুকদারের ছেলে। স্থানীয়দের কাছে তিনি ‘আবু ডাকাত’ নামে পরিচিত। তবে তিনি পূর্বের কৃতকর্মের জন্য অনুতপ্ত হয়ে এখন সুস্থ জীবনে ফিরে কৃষি কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতে চান।

সংবাদ সম্মেলনে আবুল হোসেন জানান, তার বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে একাধিক মামলা রয়েছে। সর্বশেষ গত পাঁচ মাস আগে চারটি ধারাল অস্ত্রসহ র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৮) তাকে আটক করেছিল। সেই মামলায় সম্প্রতি জামিন পান তিনি। তার স্ত্রী ও একটি শিশু সন্তান রয়েছে। সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য সুস্থ জীবনে ফিরতে চান তিনি। তাই জেল থেকে বেরিয়ে জীবিকার জন্য কৃষি কাজে মনোনিবেশ করেন। কিন্তু জমি নিয়ে নিজ গোষ্ঠীর লোকেদের সাথে বিরোধ তৈরি হয়। এরপর থেকে স্থানীয়রা ও নিজ গোষ্ঠীর লোকেরা তাকে ডাকাত বলে সমাজ থেকে দূরে সড়িয়ে রাখছে। তাই সম্প্রতি তিনি রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) কাছে এসে নিজের কৃতকর্মের জন্য অনুতপ্ত হয়ে সুস্থ জীবনে ফেরার অঙ্গীকার করেন ও প্রশাসনের সহযোগীতা চান।

সাতুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আবুর বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ বহু অভিযোগ রয়েছে। এই সব অভিযোগে সে দীর্ঘদিন জেলে ছিল। তবে সে যদি এখন সুস্থ জীবনে ফিরে আসতে চায় তবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, সম্প্রতি জেল থেকে বেরিয়ে আবুল হোসেন থানায় এসেছিলেন। তিনি পূর্বের কৃতকর্মের জন্য অনুশোচনা করে সুস্থ জীবনে ফেরার অঙ্গীকার করেছেন। তাকে আমরা নজরদারির মধ্যে রাখবো। যদি সে সুস্থ ও সুন্দরভাবে জীবনযাপন করে তবে তাকে পুলিশের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। এ সব অঙ্গীকারে আবুল হোসেন স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে আইনশৃংখলা বাহিনীর সহযোগীতা চেয়েছেন।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]