১৮ই এপ্রিল, ২০১৯ ইং, বৃহস্পতিবার

ঘাতক বাস চালক আটক, ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

আপডেট: মার্চ ২২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

সৈয়দ মেহেদী হাসান : সড়কের শৃঙ্খলা ফেরানো ও নিরাপদ জীবনের দাবীতে ঢাকাসহ দেশব্যাপী যখন শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলছে ঠিক সেই মুহুর্তে বরিশালে ঘটে গেল মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা। আজ সকাল সাড়ে নয়টার দিকে গড়িয়ার পাড় এলাকার তেতুলতলা নামক স্থানে মাহিন্দ্র ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা গেছে। বাকিরা চিকিৎসাধীন রয়েছে। এর আগে ২১ মার্চ রাতে উজিরপুরে পুলিশবাহী প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নিহত হয় ৩য় শ্রেণীর ছাত্র দীপ কর্মকার ও মঠবাড়িয়ায় টমটম উল্টে নিহত হয় চালক ইব্রাহীম জমাদ্দার (৩৫)। অর্থাৎ ১৪ ঘন্টার ব্যবধানে বরিশাল বিভাগে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে গড়িয়ারপাড়ের দুর্ঘটনার ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে আহ্বায়ক করে মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিনিধি, বিআরটিএ এডি, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্রতিনিধি, ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটি আগামী ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিবেন বলেও জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। তাৎক্ষণিক আহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে এবং নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে জেলা প্রশাসেনর ফান্ড থেকে আর্থিক সহয়তা প্রদান করা হয়। এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ জানিয়েছে, ঘাতক বাসের চালককে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাবুগঞ্জ থেকে আটক করেছে পুলিশ। ওই চালকের নাম আ: জলিল (৩২)।বিমানবন্দর থানার ও‌সি আব্দুর রহমান মুকুল জা‌নি‌য়েছেন, বাবুগঞ্জ উপ‌জেলার আর‌জিকা‌লিকাপু‌রের নিজ বা‌ড়ি থে‌কে জ‌লিলকে গ্রেফতার করা হয়।

ওদিকে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নিয়েছেন বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোশারেফ হোসেন, জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান, শেবাচিম পরিচালকসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন, নিহত মেহেরুননেছার নাতি আব্দুল্লাহ (৭), সুমন (২৫), তন্নি (১৭) এবং দুলাল হালদার (৩০)। তাদের হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

হতাহতদের উদ্ধারকারী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার ইউনুস আলী জানিয়েছেন, মাহিন্দ্রাটি (নম্বর বরিশাল থ-১১ ০৯০৭) যাত্রী নিয়ে বানারীপাড়া থেকে বরিশালের উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে গড়িয়ারপাড় এলাকাধীন তেতুলতলা নামক স্থানে বানারীপাড়াগামী ‘দুর্জয় পরিবহন’ (নম্বর বরিশাল মেট্রো-ব ১১-০০৬২) নামক একটি যাত্রীবাহী বাস মাহিন্দ্রাকে সামনের দিক থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মাহিন্দ্রাটি দুমড়েমুচড়ে রাস্তার পাশে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই বিএম কলেজের কলেজ ছাত্রী শীলার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসে। এসময় জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক মানিক ও খোকনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও মারা যান মেহেরুননেছা, মাহিন্দ্রাচালক সোহেল ও পারভীন। সর্বশেষ উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যায় নিহত পারভীনের ছেলে তাইয়ুম (৭)।

বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানার ওসি আব্দুর রহমান মুকুল জানান, নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে ৯ জন যাত্রী নিয়ে মাহিন্দ্রাটি বানারীপাড়ার উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বিপরীত দিক থেকে বরিশালের উদ্দেশে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা দুর্জয় পরিবহনের বাসের ধাক্কায় মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে। মুকুল জানান, চালককে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার প্রস্তুতি চলছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
এপ্রিল ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মার্চ    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
Website Design and Developed By Engineer BD Network