সংবাদ শিরোনাম :

নির্বাচনী বিরোধ : বরগুনায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা


বরগুনা প্রতিনিধি  || বরিশালট্রিবিউন.কম ||   প্রকাশিত:  জানুয়ারি ৯, ২০১৯


বাবাকে মারধরের প্রতিবাদ করায় বাদশা মৃধা (৩০) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। মঙ্গলবার রাতে বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের কামড়াবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বাদশা মৃধা সদর উপজেলার বুড়ির চর ইউনিয়নের সোহরাব মৃধার ছেলে ও উপজেলা যুবলীগের সদস্য।

স্থানীয় ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, সাম্প্রতিক নির্বাচন প্রসঙ্গে মহসিন নামের এক যুবকের সাথে বাদশার বাবা সোহরাব মৃধার কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় সোহরাব মৃধাকে মারধরও করেন তারা।

এ বিষয়ে সোহরাব মৃধার ছেলে প্রতিবাদ করায় মঙ্গলবার প্রতিপক্ষের লোকজন মিলে বাদশাকে কুপিয়ে হত্যা করে।

কামড়াবাদ স্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি ফাঁকা জায়গায় বাদশাকে আটকিয়ে মহসিনের নেতৃত্বে রাকিব ও জাকারিয়া দা দিয়ে এলোপাথারি কোপায়। এ সময় বাদশা দৌড়ে পাশের স্ট্যান্ডে যায় এবং মোবাইল ফোনে তার বাবাকে সব কিছু জানায়। এরপর সে অজ্ঞান হয়ে গেলে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে অজ্ঞান অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা সোহরাব মৃধা অভিযোগ করেন, আমার ছেলেকে মহসিনের নেতৃত্বে রাকিব ও জাকারিয়া কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমি এই হত্যাকারীদের বিচার চাই।

নিহতের ঘটনা শুনে হাসপাতালে ছুটে আসেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কামরুল আহসান মহারাজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুনাম দেবনাথসহ আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান, ঘটনাটি শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তাছাড়া আমি নিজেই হাসপাতালে গিয়েছি। এ ঘটনার সাথে যারা যুক্ত তাদেরকে আটকের জোর চেষ্টা চলছে। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।