১৮ই জুন, ২০১৯ ইং, বুধবার

বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে জখমি রোগীর সেলাই দেয় ক্লিনার!

আপডেট: জুন ১১, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের ক্লিনার (পরিচ্ছন্নতা কর্মী), গেটম্যান, ফ্রি-সার্ভিস কর্মীদের দৌরাত্ম্যে প্রতিনিয়ত নাজেহাল হচ্ছেন রোগীর স্বজনরা। রাতের বেলায় তাদের বিরুদ্ধে চিকিৎসক সেজে জখমি রোগীর ক্ষতস্থানে সেলাই ও সর্ট স্লিপে বাইরে থেকে কেনা ওষুধ আত্মসাতের ভয়ঙ্কর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার (১০ জুন) রাতে শেবাচিশ হাসপাতালের ক্লিনার মুরাদ জামান তামিমের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, গত ১০ জুন রাতে ক্লিনার ক্লিনার মুরাদ জামান তামিম হাসপাতালের একজন জখমি রোগীর মাথার স্পর্শকাতর ক্ষতস্থানে সেলাই দেয়ার জন্য সর্ট স্লিপে তার স্বজনদের বাইরে থেকে ওষুধ কিনে আনতে বলেন। যদিও হাসপাতালে আগে থেকেই ওই ধরনের ওষুধের সরবরাহ রয়েছে। রোগীর স্বজনরা ওই ওষুধ কিনে আনার পর ক্লিনার তা ক্ষতস্থানে ব্যবহার না করে আত্মসাত করে। এ ঘটনা জানাজানি হলে রোগীর স্বজনদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

অভিযোগ রয়েছে, হাসপাতালে দায়িত্বরত চিকিৎসক ও সিনিয়র নার্সরা অনেক ক্ষেত্রেই ফ্রি সার্ভিস ও চুক্তিভিত্তিক কর্মচারীদের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েন। চিকিৎসক ও নার্সদের দেওয়া সুযোগেই ফ্রি সার্ভিস কর্মীরা এ ধরনের প্রতারণা করে থাকে।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা বরিশাল নগরীর ২৬ নং ওয়ার্ডের টিয়াখালী সড়কের আকন বাড়ীর বাসিন্দা রিয়াজ আকন জানান, এখানে আসার পর থেকেই পদে পদে টাকা দিতে হয়েছে। জরুরি বিভাগ থেকে ট্রলিতে করে রোগী ওপরে নেয়া, ক্ষতস্থানে ড্রেসিং করানো এমনকি রোগী মারা গেলেও ট্রলিতে করে নীচে নামাতে ফ্রি সার্ভিস কর্মীদের বকশিশের নামে টাকা দিতে হয়। হাসপাতালে যেসব কাজ চিকিৎসক ও নার্সদের করার কথা সে সব কাজ এই ফ্রি সার্ভিসের লোক দিয়ে করানো হয়। ফলে তারা সহজেই রোগী ও স্বজনদের জিম্মি করে ফেলে।

অভিযোগ রয়েছে, অসুস্থ বয়স্ক রোগীদের ক্যাথেটার পড়ানো, খাবার খাওয়ানোর জন্য এনজিটিউব পরানোর জন্য ফ্রি সার্ভিস কর্মীদের নির্ধারিত দুইশ’ টাকা করে দিতে হয়। যদিও এসব কাজ হাসপাতালের ওয়ার্ডবয়, চিকিৎসক ও নার্সদের করার কথা।

শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. মোঃ বাকির হোসেন জানান, জনবল সঙ্কট থাকাতে ফ্রি সার্ভিস হিসেবে কিছু মানুষ হাসপাতালে কর্মরত রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মাঝে মধ্যেই নানা ধরনের অভিযোগ শোনা যায়। তবে কোনো অন্যায়কারীকে ছাড় দেয়া হয় না। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
জুন ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মে    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
Website Design and Developed By Engineer BD Network