কর্মচারীর সাথে কেবিনে রাত্রিযাপন তজুমদ্দিনের প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার!

  • 38
    Shares

ভোলা: ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা তারই এক অফিসের কর্মচারীকে নিয়ে রাতে একই কক্ষে লঞ্চে ঢাকা ভ্রমনে গেছেন। বিষয়টি জানতে পেরে, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার স্ত্রীর সাথে প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার সাথে যে নারী রাত্রিযাপন করে ঢাকা গেছেন তার স্বামীর সাথে মোবাইলে কথার কাটাকাটি হয়। খবর পেয়ে সেই নারীর স্বামী ঢাকা থেকে তজুমদ্দিনে চলে আসেন।

আর তাতেই চাউড় হয়ে যায় সব। জানা গেছে, তজুমদ্দিন উপজেলার প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র সরকারের সাথে তার অফিসেরই এক নারীকর্মীর সাথে পরকীয়া সর্ম্পক গড়ে ওঠে। সেই নারী প্রানী সম্পদ দপ্তরের কমিউনিটি এসটেনশন ফর লাইভস্টক (সিল) এর ইউনিয়ন কর্মী। ২৬ মার্চ সন্ধ্যায় বেতুয়াঘাট থেকে লঞ্চে ঢাকা পারি জমান দু’জনে।

এই নিয়ে পলাশ সরকারের স্ত্রী এবং ওই নারী কর্মীর স্বামী বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। ওই নারীর স্বজনরা পলাশ সরকারকে খোঁজাখুঁজি করলে তিনি পালিয়ে যান। ওই নারীর স্বামী মোবাইলে জানান, আমি ঢাকায় থাকি, এই ঘটনা শুনে বাড়ী এসেছি। পলাশ সরকারের স্ত্রী মোবাইলে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে।

জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ইন্দ্রজিৎ মন্ডল জানান, তজুমদ্দিন উপজেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তরের একটি নারী ঘটিত ব্যাপার আমাকে অবহিত করা হয়েছে। পলাশ সরকার মোবাইল ফোনে দুই দিনের ছুটি চেয়েছে। বিষয়টি আমি খোঁজখবর নিয়ে দেখছি। ##

সূত্র: ভোলাটাইমস


  • 38
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]