কলমিলতায় অগ্নিকাণ্ডে ৮ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি, তদন্ত কমিটি গঠন


ভোলা : মেঘনা নদীতে চলন্ত ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ৮ কোটি টাকার সম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী এই তদন্ত কমিটি গঠন করেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুজিত কুমার হালদারকে আহবায়ক করে ৫ সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা হলেন, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নাজমুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মহসিন আল ফারুক, ভোলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক মো.ফারুক হোসেন ও ভোলা বিআইডব্লিটিএ’এর সহকারী পরিচালক মো.কামরুজ্জামান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুজিত কুমার হালদার জানিয়েছেন, ৭ কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই প্রতিবেদন জমা দেওয়ার চেষ্টা করবো। ক্ষয়ক্ষতি ও আগুনের সূত্রপাত সব কিছুই তদন্তে উঠে আসবে।

ভোলা ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানিয়েছেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে কমপক্ষে ৮ কোটি টাকার সম্পদ পুড়ে গেছে। মূলত আমরা ন্যাশনাল হেল্প ডেস্ক নম্বর ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছি। সেখানে টানা ২ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। ফেরিটি বর্তমানে মেঘনার গুনগুনিয়া চরে নোঙর করে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, লক্ষ্মীপুর থেকে ভোলা যাওয়ার সময় মেঘনা নদীতে কলমীলতা নামের ওই ফেরিতে আগুন লেগে ৯টি যানবাহন পুড়ে যায়। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) ভোর ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত না হলেও পিকআপ ভ্যান, ট্রাক, প্রাইভেটকার, মোটরসাইকেলসহ ৯টি গাড়ি আগুনে পুড়ে গেছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ককশিট বোঝাই একটি পিকআপ ভ্যানে সিগারেটের আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]