ধর্মীয় পোশাকের বাধ্যবাধকতা তুলে দিল ইন্দোনেশিয়া


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইন্দোনেশিয়ান সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাধ্যগতভাবে ধর্মীয় পোশাক পরাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এর আগে, দেশটিতে স্কুলে ধর্মীয় পোশাক পরা বাধ্যতামূলক ছিল। সম্প্রতি এক খ্রিস্টান ছাত্রীকে ক্লাসে হিজাব পরতে জোর করার ঘটনা আলোচনায় আসার পর এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার সরকার।

বিবিসির এক খবরে বলা হয়েছে, ১৬ বছরের ওই শিক্ষার্থী যে স্কুলের শিক্ষার্থী ছিল, সেখানে সবার মুসলিম হিজাব পরা বাধ্যতামূলক ছিল। সরকার সব স্কুলকে এ ধরনের বাধ্যবাধকতা তুলে নিতে ৩০ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে।

ইন্দোনেশিয়া মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি দেশ যেখানে অন্য ধর্মগুলোকেও সম্মান জানানো হয়। বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সরকারি ফরমান হিসেবে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। যেসব স্কুল এই নির্দেশ মানবে না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে।

দেশটির পাদাং শহরের একটি কারিগরি স্কুলের এক ছাত্রীকে হিজাব পরতে বার বার জোর করার পর ঘটনাটি সম্প্রতি জাতীয় পর্যায়ে আলোচনায় আসে। ছাত্রীটি হিজাব পড়তে অস্বীকৃতি জানালে তার অভিভাবকদের স্কুলে তলব করা হয়। অভিভাবকরা স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের সেই ভিডিও গোপনে ধারণ করেন ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করেন। ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়লে অনলাইনে ব্যাপক সমালোচনা তৈরি হয়।


[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]