রমজানে প্রয়োজনীয় ৬ পণ্যের দাম নির্ধারণ

  • 2
    Shares

আগে থেকেই খুচরা পর্যায়ে ভোজ্যতেলের দাম প্রতিকেজি ১৩৯ টাকা নির্ধারণ করে রেখেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এছাড়া, নতুন করে আরও পাঁচটি পণ্যের খুচরা মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে কৃষি বিপণন অধিদফতর। রমজানে এ দামে খুচরা বাজারে পণ্য বিক্রি নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে অধিদফতর।

আসন্ন রমজানে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের যৌক্তিক খুচরা মূল্য নির্ধারণে রাজধানীর কৃষি বিপণন অধিদফতর কার্যালয়ে সোমবার (১২ এপ্রিল) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এ সময় অধিদফতরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নির্ধারিত দাম অনুয়ায়ী- খুচরা বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম হবে সর্বোচ্চ ৪০ টাকা, চিনি ৬৭ থেকে ৬৮ টাকা, ছোলা ৬৩ থেকে ৬৭ টাকা, মসুর ডাল উন্নতমানের হলে দাম হবে ৯৭ থেকে ১০৩ টাকা ও সাধারণ মোটা মসুর ৬১ থেকে ৬৫ টাকা, সাধারণ মানের খেজুর ৮০ থেকে ১০০ টাকা এবং মধ্যম মানের ২০০ থেকে ২৫০ টাকা এবং সয়াবিন তেল লিটারে ১৩৯ টাকা।

মহাপরিচালক বলেন, শুধু দাম নির্ধারণ নয়। তা বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। অসাধু ব্যবসায়ীরা যাতে পণ্যের দাম বাড়াতে না পারে সেটা দেখা হবে।

রাজধানীতে ৩০টি মোবাইল টিম কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, যদি দেখতে পাই কোন কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করে ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট করছে, তবে কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কৃষি বিপণন অধিদফতর জানিয়েছে, দেশের উৎপাদন, আমদানি, ক্রয়মূল্য, মজুত ও চাহিদার তথ্য বিবেচনায় নিয়ে এ দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতি বছর ৪১টি নিত্যপন্যের দাম নির্ধারণে কাজ করে এ অধিদফতর।


  • 2
    Shares

[প্রিয় পাঠক, আপনিও (www.barisaltribune.com) বরিশালট্রিবিউনের অংশ হয়ে উঠুন। আপনার এলাকার যে কোন  সংবাদ, লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-barisaltribune@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]